ওজন বাড়া রোধ করতে এড়িয়ে চলুন এ খাবারগুলো

ওজন বাড়া রোধ করতে চাইলে অতিরিক্ত চর্বিযুক্ত খাবার থেকে দূরে থাকতে হবে, তা জানেন সবাই। কিন্তু আপাতদৃষ্টিতে স্বাস্থ্যকর কিছু খাবার আছে যা ওজন কমানোর উদ্দেশ্যে আমরা খাই। অথচ এগুলো আপনার অজান্তেই ওজন বাড়িয়ে দিতে পারে। ওজন কমাতে চাইলে এই খাবারগুলো থেকে দূরে থাকুন।

১) গ্র্যানোলা বার

আধা কাপ গ্র্যানোলায় (মিশ্র শস্যদানা) থাকে ২০০-৩০০ ক্যালোরি। শুধু তাই নয়, গ্র্যানোলা বারে সাধারণত ফল, দই বা চকলেট মেশানো থাকে, ফলে তাতে আরো ক্যালোরি যুক্ত হয়। ব্রেকফাস্টে এক বাটি গ্র্যানোলা বা একটি গ্র্যানোলা বার খেলেই আপনার ৬০০ ক্যালোরি গ্রহণ করা হয়ে যাবে, অথচ আপনি টেরও পাবেন না। ফলে অজান্তেই বাড়বে আপনার ওজন।

) হিমায়িত খাদ্য

ফ্রোজেন পরোটা, সমুচা, সিঙ্গারা, চিকেন নাগেটস, এগুলো অনেকের কাছেই খুবই প্রিয়। খাবার প্রস্তুতের ঝামেলায় যেতে হয় না, ফ্রিজ থেকে বের করে ভেজে নিলেই খাওয়া যায়, এ কারনে কর্মজীবীরাই ফ্রোজেন খাবার বেশি কেনেন। কিন্তু ফ্রোজেন খাবারে প্রচুর ক্যালোরি থাকে। শুধু তাই নয়, ফ্রোজেন খাবারে সাধারণত অতিরিক্ত সোডিয়াম থাকে। ফলাফল হিসেবে আপনার শরীর আরো বেশি ক্যালোরি গ্রহণের চেষ্টা করে।

৩) মকটেইল এবং স্মুদি

ফ্রুট জুস দিয়ে তৈরি মকটেইল ইদানিং বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। কিন্তু ফলের রস আছে বলেই যে এগুলো স্বাস্থ্যকর, তা কিন্তু মোটেই নয়। বরং সিরাপ থাকে বলে এগুলো পান করলে বেশি পরিমাণে ক্যালোরি গ্রহণ হতে পারে।

অন্যদিকে, স্বাস্থ্যকর মানুষরা জুসের তুলনায় স্মুদি পান করেন বেশি। বাড়িতে তৈরি করা স্মুদি অবশ্য বেশ স্বাস্থ্যকর হয়। কিন্তু বাইরে থেকে কিনে খেলে বেশিরভাগ সময়েই দেখা যায় এতে রয়েছে অতিরিক্ত চিনি যা আপনার ওজন কমার পথে কেবল বাধাই হয়ে দাঁড়াবে।

৪) মাইক্রোওয়েভে তৈরি পপকর্ন

পপকর্ন হোল গ্রেইন হওয়াতে তা স্বাস্থ্যকর বলেই ধরা হয়। অনেক ডায়েটিশিয়ানই ওজন কমাতে পপকর্ন খাওয়ার পরামর্শ দেন। কিন্তু বাজারে যেসব মাইক্রোওয়েভ পপকর্ন কিনতে পাওয়া যায় সেগুলো তেমন একটা স্বাস্থ্যকর নয়। এসব পপকর্নের প্যাকেট মাইক্রোওয়েভে কিছুক্ষণ গরম করলেই খাওয়ার জন্য প্রস্তুত হয়ে যায় বলে অনেকেই তা পছন্দ করেন। আসলে কিন্তু এসব পপকর্নে প্রচুর মাখন দেওয়া থাকে। ফলে ওজন কমানোর ইচ্ছে থাকলে এই পপকর্ন খাওয়া যাবে না।

৫) ভেজিটেবল চিপস

ভেজিটেবল চিপস খেতে চাইলে নিজেই বাড়িতে কাঁচকলা, গাজর এবং জুকিনি স্লাইস করে ওভেনে বেক করে নিতে পারেন। এতে খাবারটি স্বাস্থ্যকর থাকবে। কিন্তু দোকান থেকে কেনা ভেজিটেবল চিপস মোটেও আপনার উপকারে থাকবে না। মনে রাখুন, পণ্যের নামে ‘ভেজি’ থাকলেই তা স্বাস্থ্যকর নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here