মাহফুজুর রহমান এবার নায়িকা পপির মেকআপম্যান হলেন

mahfuzur rahman the makeup man of popy

ঢাকা: অনেক মুখ রোচক খবর অনেক সময়ই সিনেমার নায়ক নায়িকাদের নিয়ে বাজারে শোনা যায়।তবে কিছু রটনা কিন্তু ঘটনার সাথে সাথে সত্যি হিসেবেই আবির্ভূত হয়। তবে ১৮ মার্চ মাহফুজুর রহমান পপির মেকআপম্যান হিসেবে কাজ করেছেন বলে জানা গেছে!

জানা যায়, ১৮ মার্চ বিএফডিসিতে সাদেক সিদ্দিকি পরিচালিত ‘সাহসী যোদ্ধার’ নতুন সিনেমার একটি আইটেম গানের শুটিংয়ে অংশ নেন পপি। শুটিং সেটে এসময় উপস্থিত হন এটিএন বাংলার চেয়ারম্যান ড. মাহফুজুর রহমান। কিছুক্ষণ দেখার পর হঠাৎ করেই তিনি জানান দেন পপির মেকআপ ঠিক হয়নি।

তিনি বলেন, ‘মেকাআপ কে করেছেন? মেকআপ তো ভালো হয়নি।’ এসময় মেকআপ আর্টিস্ট মনির হোসেন দৌঁড়ে এসে বলেন, ‘স্যার কি করতে হবে।’ এরপর নিজেই মেকআপের সরঞ্জাম নিয়ে পপির মেকআপ ঠিক করতে শুরু করেন ড. মাহফুজুর রহমান।

পপির মেকআপ ঠিক করার সময় বেশ মজাও করেন মাহফুজুর রহমান। পপিও এই ঘটনায় বেশ আনন্দ পেয়েছেন। মাহফুজুর রহমান পপিকে বলেন, ‘আমার জীবনে প্রথম আমি মেকআপ ম্যান হিসেবে কাজ করেছি। এখানে লজ্জার কিছু নেই আমাদের সিনেমায় যত ভালো তোমাকে লাগবে, দর্শক হলে গিয়ে তত বেশি ছবি দেখবে।’

বাংলাদেশের প্রথম স্যাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল এটিএন বাংলার চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান ১৯৭৮ সালে তার ব্যবসায়িক জীবন শুরু করেন। বাংলাদেশ থেকে নীট পোশাক ইওরোপে রপ্তানির মধ্যে দিয়েই তার এই ব্যবসার শুরু। এরপর ১৯৯৫ সালে এই ব্যবসার খাতিরেই ভারতের মুম্বাই শহরে গিয়ে জি-টিভির কার্যক্রম দেখে তার ইচ্ছা হয় ওই আদলে বাংলাদেশে একটি স্যাটেলাইট টেলিভিশনের প্রচার শুরু করার ।

পপি তার নতুন সিনেমা ‘সাহসী যোদ্ধার’ একটি আইটেম গানের শুটিংয়ে রবিবার অংশ নেন। আইটেম গান দিয়ে শুটিং শুরু হয়েছে। টানা শুটিং চলবে এপ্রিল পর্যন্ত। এফডিসি ছাড়াও সিলেট, কক্সবাজারে এ সিনেমার শুটিং হবে। পপি ছাড়াও সিনেমাটিতে অভিনয় করছেন আমিন খান, ইমন ও শিরিন শিলা।

‘সাহসী যোদ্ধা’ পরিচালনা করছেন সাদেক সিদ্দিকী। গল্প ও চিত্রনাট্য করছেন কমল সরকার। চিত্রগ্রহণে আছেন পনির। কোরিয়গ্রাফি করছেন আজিজ রেজা। এটি প্রযোজনা করছে আনন্দবাজার মাল্টিমিডিয়া।

পপির গোপন সংসারের খবর ফাঁস!

ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেত্রী সাদিকা পারভিন পপি মিডিয়ার চোখ ফাঁকি দিয়ে বেশ আগেই বিয়েটা সেরে ফেলেছেন বলে সংবাদ প্রকাশ হয়েছে। আর সেই পাত্র নাকি গাজী মিজানুর। তিনি পেশায় একজন ডাক্তার।

ডাক্তার মিজান সম্পর্কে পপির কাজিন হন। অনেকদিন আগ থেকেই নাকি গোপনে তাদের সংসার চলছে। মিডিয়াকে না জানিয়ে অনেকটা গোপনেই বিয়ে সেরে নিয়েছেন রুপালি পর্দার এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী।

জানা গেছে, পপির বর গাজী মিজানুর খুলনার এক ধর্নাঢ্য পরিবারের সন্তান। তিনি এর আগে একটি বিয়ে করেছেন। সেই সংসারে তার একটি সন্তানও রয়েছে। অভিনেত্রী পপি তার দ্বিতীয় স্ত্রী।

একটি সূত্র জানিয়েছে, খুলনার একটি বড় ক্লিনিক ‘খুলনা সার্জিক্যাল’ পপি নিজের নামে লিখিয়ে নিয়েছেন। সাথে মোটা অংকের ব্যাংক ব্যালেন্স দিয়েই পেয়েছেন পপিকে। পপি খুলনা গেলে ডা. গাজী মিজানের বাসায় একসাথে থাকেন। ব্যবহার করেন তার গাড়ি। আবার মিজান ঢাকায় আসলে পপির আলাদা ফ্ল্যাটে উঠেন। এভাবেই চলছে তাদের সংসার জীবন।

তবে বিষয়টি পপির পরিবার অথবা চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট কেউ না জানলেও খুলনাবাসীর কাছে তা স্পষ্ট। বরাবরের মত বিষয়টি পপি পুরোপুরি অস্বীকার করেন। দেখা যাক এটা গুঞ্জনই থাকে নাকি সত্যে পরিনত হয়!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here